বাড়ি ঢাকা নিউজ বাণিজ্য মেলা আজ শুরু

বাণিজ্য মেলা আজ শুরু

29
0

আজ বুধবার শুরু হচ্ছে ২৪তম ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা (ডিআইটিএফ)। এ উপলক্ষে রাজধানীর শেরেবাংলা নগর বাণিজ্য মেলা মাঠে গতকাল শেষ সময়ের প্রস্তুতি চলছিল। ছবি: সাইফুল ইসলামরাজধানীর শেরেবাংলা নগরে আজ বুধবার থেকে শুরু হচ্ছে ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা (ডিআইটিএফ)। রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরো (ইপিবি) আয়োজিত মেলা চলবে আগামী ৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। প্রিমিয়ার প্যাভিলিয়ন, সাধারণ প্যাভিলিয়ন, মিনি প্যাভিলিয়ন, প্রিমিয়ার স্টল, সাধারণ স্টল, খাবারের দোকানসহ মেলায় মোট ৬০৫টি স্টল থাকবে, যার ৩৫টি বিদেশি।

এবারের আয়োজন মেলার ২৪তম আসর। ১৯৯৫ সাল থেকে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সহায়তায় ইপিবি এই মেলা আয়োজন করে আসছে। আজ বুধবার বিকেলে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ এবারের মেলার উদ্বোধন করবেন বলে আয়োজকেরা জানিয়েছেন। এ সময় উপস্থিত থাকবেন নতুন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি এবং বাংলাদেশ শিল্প ও বণিক সমিতি ফেডারেশনের (এফবিসিসিআই) সভাপতি মো. শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন।

রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে অস্থায়ী কার্যালয়ে গতকাল এক সংবাদ সম্মেলনে মেলার বিস্তারিত তুলে ধরে ইপিবি। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি। তিনি মেলার খবর প্রচার করে সাধারণ মানুষের কাছে তথ্য পৌঁছে দেওয়ার অনুরোধ জানান গণমাধ্যমকর্মীদের। পাশাপাশি মন্ত্রী হিসেবে নিজের দায়িত্ব পালনে গণমাধ্যমের সহায়তা চান। তিনি বলেন, ‘আমাদের অনেক চিন্তা ও পরিকল্পনা আছে। পোশাক খাতের পাশাপাশি অন্যান্য খাতকে এগিয়ে নিতে আমি চেষ্টা করব। দেশে কর্মসংস্থান তৈরি ও বিনিয়োগ আকৃষ্ট করার ক্ষেত্রে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের চেষ্টা থাকবে।’   

ইপিবি জানায়, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের কারণে এবারের মেলা শুরু হতে দেরি হয়েছে। সাধারণত জানুয়ারি মাসের প্রথম দিন থেকে এক মাসের এই মেলা শুরু হয়। এবার তা যেহেতু আট দিন দেরিতে শুরু হচ্ছে, সেহেতু আগামী মাস অর্থাৎ ফেব্রুয়ারির ৮ তারিখ পর্যন্ত এটি চলবে।

প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত মেলাটি দর্শনার্থীদের জন্য খোলা থাকবে। মেলায় প্রবেশের টিকিট মূল্য ৩০ টাকা। অবশ্য অপ্রাপ্তবয়স্কদের জন্য তা ২০ টাকা। এবার প্রথমবারের মতো অনলাইনে টিকিট কাটার ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। এতে ৩০ টাকার টিকিটে ব্যয় হবে ৩২ টাকা।

মেলায় এবার বিভিন্ন শ্রেণির প্যাভিলিয়ন সংখ্যা ১১০টি, মিনি প্যাভিলিয়ন সংখ্যা ৮৩টি এবং স্টল সংখ্যা ৪১২টি। বরাবরের মতো এবারও বঙ্গবন্ধু প্যাভিলিয়ন থাকছে। এ ছাড়া ডিজিটাল এক্সপেরিয়েন্স সেন্টার, ব্যাংক বুথ, ফুলের বাগান, শিশুপার্ক, প্রাথমিক চিকিৎসাকেন্দ্র, মা ও শিশুকেন্দ্র, রক্ত সংগ্রহ কেন্দ্র, ডাকঘর, ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের কক্ষ, হাজতখানা, বিশ্রাম স্থান, মসজিদ ও ১২টি স্থানে শৌচাগার, ফায়ার সার্ভিস স্টেশন, গাড়ি পার্কিংয়ের ব্যবস্থা ইত্যাদি থাকছে। সব মিলিয়ে মেলা প্রাঙ্গণের আয়তন ৩১ দশমিক ৫৩ একর।

ইপিবি জানিয়েছে, এবার বাণিজ্য মেলায় ২২টি দেশের ৫২টি প্রতিষ্ঠান অংশ নিচ্ছে। অংশ নেওয়া দেশগুলো হলো থাইল্যান্ড, ইরান, তুরস্ক, শ্রীলঙ্কা, মালদ্বীপ, নেপাল, চীন, মালয়েশিয়া, ভিয়েতনাম, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ভারত, পাকিস্তান, হংকং, সিঙ্গাপুর, মরিশাস, দক্ষিণ কোরিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা, জার্মানি, সুইজারল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া ও জাপান। মেলার দর্শনার্থীদের নিরাপত্তার জন্য পর্যাপ্ত আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য মোতায়েন করা হবে এবং পর্যাপ্ত ক্লোজড সার্কিট ক্যামেরাও থাকবে বলে জানিয়েছে ইপিবি।

সংবাদ সম্মেলনে এক প্রশ্নের জবাবে ইপিবির ভাইস চেয়ারম্যান বিজয় ভট্টাচার্য বলেন, বিদেশি ক্রেতাদের জন্য দেশে বিভিন্ন প্রদর্শনী আয়োজন করা হয়। বাণিজ্য মেলার প্রকৃতি সেগুলোর চেয়ে আলাদা। বাণিজ্য মেলার উদ্দেশ্য দেশীয় পণ্যের প্রসার ও দেশীয় প্রতিষ্ঠানগুলোর ব্র্যান্ডিং। তিনি বলেন, এখন বাণিজ্য মেলায় দেশীয় প্রতিষ্ঠানগুলোয় দেশীয় ব্র্যান্ডের আধিপত্য দেখা যায়। বাংলাদেশে দেশীয় ব্র্যান্ড গড়ে উঠছে। এটাকে এগিয়ে নিতে হবে।

অনুষ্ঠানে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ও ইপিবির কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here